পূর্বধলা মহিলা আওয়ামীলীগের উজ্জল নক্ষত্র শাহানাজ পারভীন

প্রকাশিত: ১০:৪৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

নেত্রকোণার পূর্বধলার আওয়ামী ঘরানার রাজনীতির আলোকিত একটি নাম শাহানাজ পারভীন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের অকুতোভয় সৈনিক শাহানাজ পারভীন আওয়ামীলীগের একজন পরিক্ষীত ত্যাগী ও নিবেদিত প্রাণ নেত্রী । পূর্বধলার মানুষের সুপরিচিত ও জনবান্ধব এই নেত্রী প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলের শত জুলুম অত্যাচার নিপীড়ন নির্যাতনে কখনও ভীত হননি। সকল বাধার প্রাচীর ডিঙ্গিয়ে আওয়ামীলীগের পতাকাকে সব সময়ই সমুন্নত রেখেছেন নির্ভয়ে নির্বিঘে্ন। রাজনৈতিক জীবনের ধারাবাহিকতায় প্রথমে ছাত্রলীগ, পরে এবং বর্তমানে মহিলা আওয়ামীলীগের অন্যতম নেতা ও কর্মী হিসেবে বলীষ্ট ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন।

সাধারণ মানুষের অকুণ্ঠ ভালাবাসা ও সমর্থন নিয়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জননেতা আহমদ হোসেন ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য জাকিয়া পারভীন খানম মনি’র হাতকে শক্তিশালী করার জন্য এই নেত্রী নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন । রাজনৈতিক জীবনে সকল প্রকার লোভ-লালসা ও প্রলোভনে বিচলিত না হয়ে সুখে-দুঃখে, দুর্যোগ-দুর্বিপাকে আওয়ামীলীগের হাল ছাড়েননি এই নেত্রী। প্রখর মেধাবী দূরদর্শী ও মানবিক গুণাবলীর অধিকারী শাহানাজ পারভীন। মানুষের কল্যাণ সাধনই তার রাজনীতির মুখ্য উদ্দেশ্য বলে মনে করেন। মা, মাটি ও দেশের মানুষের কল্যাণে কিছু করতে পারলে নিজেকে গর্বিত মনে করেন তিনি।

- Advertisement -

স্কুল জীবন থেকেই তিনি ছাত্রলীগের আন্দোলন সংগ্রামে নিজেকে জড়িয়ে ফেলেন। পরে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। বর্তমানে মহিলা আওয়ামীলীগের কর্মী হয়ে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য জাকিয়া পারভীন খানম মনি’র হাতকে শক্তিশালী করার জন্য একনিষ্ঠ ভাবে দেশ ও দশের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন।

ইতিপূর্বে এর আগে কোন মহিলা নেত্রী রাজনতিক ভাবে তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি। সর্বশেষ ২১ শে ফেব্রুয়ারী মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শাহানাজ পারভীনের আয়োজনে ও সংরক্ষিত আসনের এমপি জাকিয়া পারভীন খানম মনি’র উদ্যেগে পূর্বধলার স্টেশন প্লাটফর্মে মহিলা আওয়ামীলীগের র‌্যালীতে ব্যাপক কর্মীর সমাবেশ ঘটিয়ে তুমুল আলোচনার সৃষ্টি করেছেন।

পূর্বধলার মহিলা আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা আওয়ামীলীগের পরমবন্ধু পরিচ্ছন্ন রাজনীতির পুরোধা ব্যক্তিত্ব শাহনাজ পারভীন’কে যেন উপযুক্ত মূল্যায়ন করা হয়। বিচক্ষণ ও ত্যাগী এই নেত্রীকে একটি সম্মানজনক পদে অধিষ্ঠিত করে পূর্বধলার মহিলা আওয়ামীলীগকে যেন আরো গতিশীল ও বিকশিত করা হয়।