বাংলার আওয়াজ, ৭ জুলাই, ২০২০

কারখানা-প্রতিষ্ঠান খুলতে চায় সরকার, আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা রোববার

প্রকাশিত: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ, মে ১, ২০২০

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণরোধে এক মাসেরও বেশি সময় বন্ধ থাকার পর কারখানা, গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিসহ অন্যান্য শিল্প ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সীমিত আকারে চালু করতে চায় সরকার। এ জন্য আগামী রোববার (৩ মে) উচ্চপর্যায়ের আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা ডেকেছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

ওইদিন বেলা ১২টায় সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এ সভা হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এতে সভাপতিত্ব করবেন।

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) এ সভার নোটিশ জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব, শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবকে দেয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে উপস্থিত থাকতে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি), এফবিসিসিআই সভাপতি, বিজিএমইএ সভাপতি, ডিসিসিআই সভাপতি, বিকেএমইএ সভাপতি, বিটিএমইএ সভাপতি, এমসিসিআই সভাপতি এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কাছেও সভার নোটিশ বিতরণ করা হয়েছে।

সভার নোটিশে বলা হয়েছে, দেশের বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে কারখানা, গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিসহ অন্যান্য শিল্প ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সীমিত আকারে চালু রাখা বিষয়ে আলোচনার জন্য আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হবে।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হলে প্রথমে গত ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। পরে পরিস্থিতির অবনতি হলে কয়েক দফা বাড়িয়ে ছুটি আগামী ৫ মে পর্যন্ত করা হয়েছে। ২৬ মার্চ থেকে সব ধরনের গণপরিবহনও বন্ধ রয়েছে। এতে বিপুল সংখ্যক মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। শিল্প-কারখানার উৎপাদনে ব্যাঘাত ঘটেছে।

মতামত জরিপ

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকা লকডাউন করার জন্য মন্ত্রিসভার বৈঠক থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সরকারের এ নির্দেশনা সঠিক বলে মনে করেন ?
  • এই বিভাগের সর্বশেষ